মাদক ব্যবসা উচ্ছেদ নিয়ে সংঘর্ষ,আহত ২৫

35
drug_business

গোপালগঞ্জে মাদক ব্যবসা উচ্ছেদ নিয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে নারীসহ কমপক্ষে ২৫ জন আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে গোপালগঞ্জ শহরতলীর বেদগ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মারাত্মক আহত সাব্বির হোসেন (১৭), রেবেকা বেগম (৩৮), তরিকুল (৩০), আনিসুর রহমান (৪০), আওলাদ মোল্যা (৩০), ইমরান (২৫), তাবির শেখ (২৮), পিকুল হোসেনসহ (৩৫) ১০ জনকে গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সর্বশেষ খবরে জানা যায়, মাদক ব্যবসা নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

গোপালগঞ্জ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সেলিম রেজা জানান, বেদগ্রামের শেখ মোশাররফ হোসেন ও তার ভাইয়েরা এলাকায় দীর্ঘ দিন ধরে মাদক ব্যবসা করে আসছিল। মাদক ব্যবসা উচ্ছেদ নিয়ে মোশাররফ হোসেন ও জেলা পরিষদের সদস্য শেখ শাহাবুদ্দিন হিটুর মধ্যে বিরোধ চলছিল। এরই জের ধরে মোশাররফ ও তার লোকজন হিটুর লোকজনের ওপর হামলা চালায়। এতে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। সংঘর্ষে নারীসহ কমপক্ষে ২৫ জন আহত হন।

মাদক কি?

উত্তেজনা ও অবসাদ সুষ্টিকারী যে সকল দ্রব্য গ্রহণে মানুষের স্বাভাবিক চেতনা লোপ পেয়ে নেশার সৃষ্টি করে ও আচরনের অনাকাঙ্খিত পরিবর্তন ঘটে এবং তা গ্রহণের জন্য তীব্র আসক্তি সৃষ্টি করে ও অপব্যবহারের কারণ ঘটাতে পারে এমন সব দ্রব্যকেই মাদকদ্রব্য বলে । যেমন-হেরোইন, মরফিন, গাজা ইত্যাদি।

মাদকদ্রব্যের ক্ষতিকর প্রভাব

মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচার একটি জাতীয় সমস্যা। এর অপব্যবহারের শিকার হচ্ছে আমাদের যুব সমাজ। এর ভয়াবহ পরিণতি থেকে রক্ষা পাচ্ছেনা এমনকি আমাদের শিশুরাও। মাদকের করাল গ্রাস থেকে নিরাপদ নয় দেশের ছাত্র ও যুব সমাজ। একটি দেশের যুব সমাজ যদি মাদকের কাছে পরাজিত হয় তবে তা দেশের জন্য ডেকে আনে মারাত্মক পরিণতি।

মাদকাসক্ত ব্যক্তি কোনো অপরাধ করেনি; সে একটা অপরাধের সঙ্গে জড়িয়ে গেছে। প্রশ্ন: সিগারেট কি মাদক? সিগারেটকে অনেকে মাদক মনে করে না। উত্তর: সিগারেট অবশ্যই একটি মাদক। এটি অন্যান্য ভয়ংকর মাদক গ্রহণের কারণ হিসেবে ভূমিকা রাখে

মাদককে না বলুন

মাদককে না বলুন সবখানে সবসময়, মাদক নিয়ে হোক মুক্ত আলোচনা. মাদক বাংলাদেশের জাতীয় জীবনের সমস্যাগুলোর অন্যতম একটি সমস্যা। মাদকাসক্তি সমাজ জাতির পঙ্গুত্ব বরণের অন্যতম কারণ। আসুন মাদক সম্পর্কে জানি এবং মুক্ত আলোচনা করি।

 

এম. আরমান খান জয়


গোপালগন্জ থেকে

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন