বিজ্ঞান শিক্ষার চালচিত্র একটি সমীক্ষায় অংশগ্রহন করুন

72
science_education_survey

ফোকাস বাংলা নিউজ বিজ্ঞান শিক্ষার চালচিত্র শিরোনামে একটি সমীক্ষা পরিচালনা করছে। মুলত: বাংলাদেশে বিজ্ঞান শিক্ষার চালচিত্র তুলে আনাই এই জরিপের উদ্দেশ্য।

বিজ্ঞান হল যুক্তিগত জ্ঞান যা মানুষের চলার পথকে সহজ করে দেয়।

ভৌত বিশ্বের যা কিছু পর্যবেক্ষণযোগ্য, পরীক্ষণযোগ্য ও যাচাইযোগ্য, তার সুশৃঙ্খল, নিয়মতান্ত্রিক গবেষণা ও সেই গবেষণালব্ধ জ্ঞানভাণ্ডারের নামই হল বিজ্ঞান।

“আমরা প্রতিদিন বিজ্ঞানের মাঝেই বসবাস করছি, বিজ্ঞানে হাবুডুবু খাচ্ছি। বিজ্ঞানের তত্ত্ব এবং ব্যবহারিক জ্ঞানার্জনের জন্য প্রনীত শিক্ষাই হল বিজ্ঞান শিক্ষা।আজ থেকে দশ-পনের বছর আগেও যে শিক্ষা ছিল আনন্দের একটি বিষয়। আজ তা সর্বস্বই হারাচ্ছে। সংকট দেখা দিয়েছে ভবিষ্যতে এর কীরূপ চিত্র ফুটে উঠবে সে নিয়ে। আমরা বলবো বিজ্ঞান শিক্ষা এখন একটি ক্রান্তিকাল পেরোচ্ছে। এখনই হাল না ধরলে মুখ থুবড়ে পড়বে বিজ্ঞান শিক্ষা।” এ জন্য তথ্যের প্রয়োজন। আশা করা যায় এই জরিপের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে বিজ্ঞান শিক্ষার একটি তুলনামুলক তথ্য চিত্র উঠে আসবে। জরিপে স্বত:স্ফুর্ত অংশগ্রহন করার জন্য আপনাকে আহবান জানানো হচ্ছে। আপনি যদি কোন স্কুলের তথ্য জেনে থাকেন অনুগ্রহ করে আমাদের সাহায্য করুন।

ফারসীম মান্নান মোহাম্মদী বিজ্ঞান শিক্ষায় পিছিয়ে থাকার কারণ সম্পর্কে বিডিনিউজ২৪.কম এ যথার্থই লিখেছেন,

“আমাদের দেশের বিজ্ঞান-সাহিত্য খুব একটা সন্তোষজনক নয়। অনেক কারণে সম্ভাবনা থাকা সত্ত্বেও এদেশের বিজ্ঞান-সাহিত্য সমৃদ্ধ হয়ে উঠতে পারে নি। একটি প্রধান কারণ বৈজ্ঞানিক পরিভাষার অভাব। বৈজ্ঞানিক পরিভাষা যে একেবারেই নেই তা নয়, কিন্তু যা আছে তা বড়ই সংস্কৃত-ঘেঁষা, আরোপিত এবং আড়ষ্ট মনে হয়। বৈজ্ঞানিক শব্দের এই দৈন্য কেন? আমাদের ভাষা-সাহিত্য এতো সমৃদ্ধ, কত মহত্তম সৃষ্টি আমাদের ভাষাকে সমৃদ্ধ করেছে! কিন্তু বিজ্ঞানের জায়গায় এসে আমরা হোঁচট খাচ্ছি।” এ সম্পর্কিত বিস্তারিত পড়তে চাইলে এখানে দেখুন

বর্তমান যুগকে বলা হয় বিজ্ঞানের যুগ। বর্তমান সময়ে জীবনের প্রতিটা ক্ষেত্রে লেগে আছে বিজ্ঞানের পরশ। বিজ্ঞানের ছোঁয়াতে এখন মানুষ পরিহার করেছে নানা রকম কুসংস্কার, গ্রহন করেছে নানা রকম টেকনোলোজি ও তত্ত্ব। তার পরেও মনে প্রশ্ন যাগে এই বিজ্ঞানের যুগে মানুষ কি বিজ্ঞান মনষ্ক হচ্ছে? নাকি শুধুই বিজ্ঞানের দান গুলো নিচ্ছে, শিখছে বিজ্ঞান আবিষ্কৃত তত্ত্ব, টেকনোলোজির ব্যবহার?

‘বিজ্ঞান শিক্ষা’ ও ‘বিজ্ঞান মনষ্কতা’ শব্দ দুটো স্বাভাবিক ভাবে একই মনে হলেও এদের ভেতর বিস্তর ফারাক বিদ্যমান। এ দুয়ের পার্থক্য জানার আগে জানা উচিৎ বিজ্ঞান কি? লিখেছেন রোকন রকি

মামুনুর রশিদ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী গণিত বিভাগ  বিজ্ঞান শিক্ষার উন্নতি চাই শিরোনামে লিখেছেন

“ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার যত রকম প্রচেষ্টাই নেয়া হোক না কেন, বিজ্ঞান শিক্ষা ও গবেষণার প্রতি পর্যাপ্ত গুরুত্ব না দিলে তা কখনই সম্ভব হবে না। এ অবস্থা থেকে উত্তরণ করতে হলে বিজ্ঞান বিষয়কে আরো আকর্ষণীয় করতে হবে এবং বিজ্ঞানে চাকরির সুযোগ বাড়াতে হবে। শিক্ষার্থী ও তরুণদের বিজ্ঞানের প্রতি আগ্রহী করতে চাইলে সুচিন্তিত পরিকল্পনা ও পর্যাপ্ত বিনিয়োগ করতে হবে। তাদের স্বপ্ন দেখাতে হবে, উদ্বুদ্ধ করতে হবে। তবে পরিসংখ্যান বলছে এই ক্রমাবনতির হার এখন আশঙ্কাজনক অবস্থায় এসে পৌঁছেছে যা একটি জাতির পঙ্গুত্বের পূর্বাভাষ। এই দুষ্টচক্র থেকে এখনই উত্তরণ না ঘটলে জাতির কপালে ঘোর অমানিশার অন্ধকার অবধারিত। তাই একজন বিজ্ঞান শিক্ষার্থী হিসেবে বিজ্ঞান শিক্ষার এ বেহাল দশার দ্রুত উন্নতি চাই।”

চট্টগ্রাম টিচার্স ট্রেনিং কলেজের অধ্যাপক সামসুদ্দিন শিশির ২০১৩ সালে হাটহাজারী উপজেলার মাধ্যমিক স্কুল সমূহে পরিচালিত একটি সমীক্ষা “শিক্ষার হালখাতা” শীর্ষক ম্যাগাজিনে প্রতিবেদনটি প্রকাশ করেন। চিত্রটি ভয়াবহ। পড়ুন এখানে। মুলত: ২০১৩ সালের সমীক্ষাটি আজকের এই সমীক্ষা চালানোর পথকে অনুপ্রানিত ও প্রসস্ত করেছে।ফোকাস বাংলা নিউজ চট্টগ্রামসহ সারাদেশের সম্ভাব্য সকল স্কুল সমুহের মাঝে এই সমীক্ষাটি পরিচালনা করবে।

বিজ্ঞান শিক্ষার চালচিত্র সমীক্ষায় অংশগ্রহন করতে নিচের লিন্কে যান এবং প্রয়োজনীয় তথ্য দিন। এই জরিপ চলবে ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭ পর্যন্ত। জরিপে প্রাপ্ত তথ্য আলোচনার পথকে প্রস্ত করবে।

বিজ্ঞান শিক্ষার চালচিত্র সমীক্ষা এখানে যান এবং নির্দেশনা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় তথ্য দিন এবং নিচের SUBMIT বাটনে চাপ দিন।

জীবন বাঁচাতে বিজ্ঞান, জীবন সাজাতে বিজ্ঞান, জীবনের প্রয়োজনে বিজ্ঞান – সামসুদ্দিন শিশির।

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন