ফেসবুকে অশ্লীল বার্তা জনৈক তরুনী ও গাজী রাকায়েতের পর্নোগ্রাফি – আইসিটি আইনে মামলা

83
face-book-barta

রানা সাত্তার, বিশেষ প্রতিবেদক: সোস্যাল মিডিয়া ব্যবহারে নারী তুমি সতর্ক হও। এবার ফেসবুকে অশ্লীল বার্তা ও যৌন উত্তেজক অশ্লীল প্রস্তাব দিয়েছেন এমন অভিযোগ এনে অভিনেতা ও নাট্য নির্মাতা গাজী রাকায়েতের বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা করেছেন এক তরুণী।গত বৃহস্পতিবার রাজধানীর শ্যামপুর থানায় মামলাটি করা হলেও শুক্রবার রাতে বিষয়টি জানাজানি হয়।

মামলার বিষয়ে শ্যামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.মিজানুর রহমান বলেন, ‘গাজী রাকায়েতের নাম ব্যবহার করে একটি ফেসবুক আইডি থেকে ওই তরুণীকে যে অশ্লীল প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল, সেই ঘটনার প্রেক্ষিতে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে।’

মামলার সূত্রে জানা যায়, ‘গত ২৭ ফেব্রুয়ারি গাজী রাকায়েত কুটু নামে ফেসবুক আইডি থেকে আমার মেসেঞ্জারে কথা বলার সময় বিভিন্ন অশ্লীল, অনৈতিক এবং ধর্মীয় অনুভূতি পরিপন্থী বিভিন্ন ইঙ্গিতপূর্ণ প্রস্তাব দিলে আমি তা বন্ধ করার অনুরোধ জানাই। কিন্তু তিনি তা না করে জঘন্য রকম যৌন উত্তেজক কথা বলে আমাকে প্রলুব্ধ করার চেষ্টা করেন এবং উত্ত্যক্ত করেন। গাজী রাকায়েত একজন শ্রদ্ধেয় ব্যক্তি। তার আইডি থেকে এ ধরনের বক্তব্য শুনে আমি অত্যন্ত মর্মাহত হই।

এই ঘটনার বিষয়টি নিয়ে স্ক্রিনশটসহ আমি পোস্ট দেই একটি ক্লোজড গ্রুপে। আমার পোস্টের পর ৬ মার্চ গাজী রাকায়াতের ফেসবুক আইডি থেকে বলা হয়, তার দুটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছে। আমি আমার বন্ধু অপরাজিতা সংগীতাকে বিষয়টি জানতে অনুরোধ করি। সংগীতা সেই অনুযায়ী, গাজী রাকায়েতের ফেসবুকে করা পোস্টে ‘কবে তার অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছে’ জানতে চেয়ে কমেন্ট করেন।

গাজী রাকায়েত সংগীতার প্রশ্নের উত্তর না দিলে তিনদিন পর ৯ মার্চ স্ক্রিনশটসহ সংগীতা ওই বিষয়টি জনসম্মুখে আনেন। গাজী রাকায়েত ওই মেসেঞ্জারের বক্তব্য তার ফেসবুক আইডি থেকে ঘটেছে বলে স্বীকার করে বলেন, তার মেসেঞ্জারের পাসওয়ার্ড তার ছাত্র ও ৫/৬ জনের কাছে ছিল। তারা কেউ এই ঘটনা ঘটিয়েছে বলে দাবি করেন।’

মামলার বিবরণীতে আরও বলা হয়,‘ওই ঘটনার পর বিষয়টি মীমাংসার জন্য মিডিয়া সংশ্লিষ্ট কয়েকটি গ্রুপ চেষ্টা করে। কিন্তু গাজী রাকায়েত মীমাংসা প্রস্তাবে রাজি না হয়ে বিভিন্ন প্রকার চাপ প্রয়োগের মাধ্যমে পরোক্ষভাবে আমাকে ভয়-ভীতি দেখাচ্ছে। আমি ঘটনা জানিয়ে ১৩ মার্চ ‘সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম ডিভিশনে’ অভিযোগ করি এবং ১৭ মার্চ শ্যামপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করি। কিন্তু ওই তিন সংগঠনের তথাকথিত তদন্তের ফলাফল আমি আজও  পাইনি।’

ইতোপূর্বে মেসেঞ্জারে বার্তা দেওয়ার স্ক্রিনশট প্রকাশকারী ঐ তরুণী সংগীত ‘র বিরুদ্ধে আইসিটি অ্যাক্টের ৫৭ ধারায় মামলা করেছেন নাট্যনির্মাতা গাজী রাকায়েত। রাজধানীর আদাবর থানায় ১৬ মার্চ মামলা দায়ের করেছেন তিনি। ‘উদ্দেশ্য প্রণোদিত কথোপকথনের’ স্ক্রিনশট প্রকাশ করার অভিযোগ করেছেন এ নাট্য নির্মাতা।

সূত্র: সোনালী নিউজ ২৪.কম

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন