চট্টগ্রাম সীতাকুন্ডে নৌবাহিনীর বেসামরিক কর্মকর্তা খুন

32
chattagram-sitakundu-thana

চট্টগ্রাম সীতাকুন্ডের মাদাম বিবির হাট এলকায় বাংলাদেশ নৌ বাহিনীতে কর্মরত এক বেসমারিক কর্মকর্তাকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার ১২ মার্চ ভোর রাতে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটছে বলে ধারণা করছে পুলিশ ও স্থানীয়রা। সীতাকুন্ড থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে রয়েছে। নিহত নৌ কর্মকর্তার নাম আবছার আলী (৬০)। তিনি চট্টগ্রাম বন্দরে নৌশাখায় কর্মরত ছিলেন বলে জানাগেছে।

সীতাকুন্ড থানার সাব ইন্সপেক্টর (এসআই) বেলায়েত বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ধারণা করা হচ্ছে ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে আফসার আলীর মৃত্যু হয়েছে।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর ইসা খাঁ ঘাটির অফিসার লে, কর্ণেল তৌহিদ বলেন, ঘটনাস্থলে সীতাকুন্ড থানার পুলিশ রয়েছে আপনারা পুলিশের সাথে যোগাযোগ করুন।

নৌ বাহিনী ও স্থানীয় সুত্রে জানাগেছে, নৌ-কর্মকর্তা আবছার আলী নৌবাহিনীর বেসামরিক কর্মকর্তা হিসেবে জমাদার পদে চট্টগ্রাম বন্দরে কর্মরত ছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন ভাটিয়ারীর মাদাম বিবির হাট খাদেমপাড়াস্থ নৌ বাহিনীর ঘাটির পার্শ্বে জনৈক নাসির কন্ট্রাক্টরের ভাড়া বাসায় বসবাস করে আসছেন। নিহত আবছার আলী বগুড়া জেলার ধুপাছড়ি থানার মাঠাই গ্রামের মৃত আলাউদ্দিন ফকিরের পুত্র। মেয়ের কলেজে ভর্তি সংক্রান্ত বিষয় শেষ করে তিনি সোমবার রাতে ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে ফিরে আসেন। ভোর রাতের দিকে সীতাকুন্ডের মাদাম বিবির হাট এলাকায় বাস থেকে নেমে হযরত শাহ জাহান শাহ (র.) মাজারের গলি দিয়ে বাসায় ফেরার পথে ছিনতাইকারীদের কবলে পড়েন।

এলাকাবাসীর ধারণা দীর্ঘদিন ধরে আবছার আলী ঐ এলাকায় বাসবাস করার কারণে তিনি সকলের পরিচিত মুখ ছিলেন। হয়তো ছিনতাইকারীদের চিনে ফেলায় তাকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়েছে।তার শরীরে একাধিক ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে পুলিশ জানায়।

এদিকে ঘটনার পর থেকে নৌ বাহিনীর সদস্যরা পুরো এলাকা ঘিরে রাখে। ফলে স্থানীয় সংবাদ কর্মীরা ঘটনাস্থলের কাছে যেতে পারেনি। স্থানীয় নৌ ঘাটির কর্মকর্তরাও এ ব্যাপারে মুখ খুলছে না।

সীতাকুন্ড মডেল থানার পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে।

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন